সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা | ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট | শামস্ বিশ্বাস

সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা : জীবনের চলার পথে চারিদিকে এত প্রতিকূলতা, একটার পর একটা দুর্ভাগ্যের শিঁকে ছেঁড়া, পদে পদে বাঁধা, অসম প্রতিযোগিতা- সবমিলিয়ে ইতিবাচক চিন্তা আসবে কোথা থেকে। না চাইলেও মনের মধ্যে ‘পারবো না’ ‘পারছি না’, ‘হচ্ছে না’, ‘হবে না’, ‘সব শেষ’, এই ধরণের ভাবনাগুলি মাঝে-মধ্যেই জুড়ে বসে। তারপর চূড়ান্ত হতাশা। শুধু কেরিয়ার নয়, প্রভাব পড়ে নিজের জীবনেও। না, কষ্ট করে ইতিবাচক চিন্তা করার নয়। বরং পরামর্শ হল, প্রতিকূলতা থাকবেই ধরে নিয়ে, যুক্তি দিয়ে জীবনের পথে হাঁটাতে হবে। যুক্তি দিয়ে সমস্যাগুলিকে সাজালেই সমাধান বেরিয়ে আসবে। আর এটা কেই বলা যেতে পারে ইতিবাচক চিন্তা।

সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা | ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট | শামস্ বিশ্বাস

[ সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা | ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট | শামস্ বিশ্বাস ]

আত্মবিশ্বাস নিজের ক্ষমতার উপর:

ব্যর্থতা মানেই সব শেষ হয়ে গেলে তেমনটা কখনই নয়। নিজের ভুলের জন্য যে ব্যর্থতা আসে তেমন কিন্তু মোটেই নয়। অন্য অনেক কারণ থাকতে পারে, যা ধারণার বাইরে থাকে। কোন দুর্যোগের জন্য সব কিছু মাটি হয়ে গেল এ ক্ষেত্রে তোমার কী-ই বা করার রয়েছে- বিষয়টাকে মেনে নিতে হবে। এই ধরণের ঘটনাকে মনের মধ্যে জাঁকিয়ে বসতে দেবে না। দীর্ঘমেয়াদি লক্ষ্যে পৌঁছনোর পথে এমন ঘটনা তো ঘটতেই পারে- এমন মনে করে এগিয়ে চলতে হবে।

Office Girl 6 সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা | ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট | শামস্ বিশ্বাস

চ্যালেঞ্জ মানেই সুযোগ:

জীবনের চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়া মানেই সুযোগ। জানার সুযোগ। চেনার সুযোগ। অনেকে কোনও চ্যালেঞ্জের সামনে পড়লেই রাশি রাশি চাপ নিয়ে নেন। তারপর সব কেঁচেগণ্ডূষ। আরও হতাশা। বরং ‘চ্যালেঞ্জ’ কে চ্যালেঞ্জ করে বসো। ধাপে ধাপে চ্যালেঞ্জের মোকাবিলা কর। পারলে না। ব্যর্থ হলে। উল্টো দিকে থেকে ভেবে দেখ, অনেক কিছু জানতে পারলে, শিখতে পারলে। আগামী দিনে এরকম কোনও পরিস্থিতির মুখোমুখি হলে তখন চোখবন্ধ করে সেই চ্যালেঞ্জকে মোকাবিলা করতে পারবে।

Office Girl 5 সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা | ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট | শামস্ বিশ্বাস

[[[ ক্যারিয়ার ক্যাটালগ:

]]]

ভুল হতেই পারে:

কেও পারফেক্ট নয়। কাজ করলে ভুল হতেই পারে। ভুল হওয়া মানে সেখান থেকে শিক্ষা নিয়ে আরো ভালো করা। এই মনোভাবই আসলে জীবনকে উন্নতির দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়। কাজ করতে করতে শেখা হল জীবনে উন্নতির অন্যতম হাতিয়ার। ভুল হল ওমনি একরাশ হতাশায় হাবুডুবু খেতে খেতে বললে, আমার দ্বারা হবে না। এই মনোভাব মানুষের গুণ নয়। বরং নিজের উপর বিশ্বাস না হারিয়ে ভুলকে স্বীকার করে নিয়ে ভাবো কেন ভুল হল।

সমস্যার দরকার সমাধান:

সমস্যা সমাধানের আগে গোটা বিষয়টি একবার পর্যালোচনা কর। সমস্যার ইতিহাস থাকলে তার পর্যালোচনা কর। খুব সহজেই সমাধান হাতের মুঠোয় এসে যাবে। সমস্যা সমাধানের বদলে ভাগ্যকে কিংবা অন্যকে দোষারোপ, অপ্রয়োজনীয় কার্যকলাপ সমস্যার সমাধানের থেকে আরও তাকে জটিল করে দেয়। সমস্যা সমাধানের সরল হিসেব হল, সমস্যা নিয়ে তালগোল না পাকিয়ে সমাধানের দিকে নজর দেয়া।

এই রকম ইতিবাচক ভাবনায় যদি জীবনের প্রতিটা মুহূর্তকে বেঁধে ফেলতে পারো, তবে লাভের লাভ তোমারই। নিজের কাজকে আরও ভালভাবে করতে পারবে। সাফল্যের মুকুট অপেক্ষা করবে তোমার জন্য। যুক্তির পাল তুলে, ভয়কে জয় করে, আত্মবিশ্বাসের হাল ধরে ভেসে পড় জীবন সংগ্রামের উত্তাল সমুদ্রে।

Girl in Office 1 সাফল্যের সোপান ইতিবাচক ভাবনা | ক্যারিয়ার ম্যানেজমেন্ট | শামস্ বিশ্বাস

আরও পড়ুন:

Leave a Comment